করোনা পরীক্ষা কোথায় এবং কীভাবে হচ্ছে জেনে নিন

করোনা পরীক্ষা কোথায় কোথায় করা হচ্ছে তা জেনে রাখা জরুরি। কারণ পুরো বিশ্ব আজ এক ক্ষুদ্র ভাইরাসের কবলে জর্জরিত। করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন ক্রমশ বেড়েই চলছে। অনেকে প্রাণ হারিয়েছেন এই ভাইরাস-ঘটিত মহামারিতে।

এই রোগের কোনো সুনির্দিষ্ট চিকিৎসা এখন পর্যন্ত জানা যায়নি। তাই, এই রোগটিকে ঠেকানোর একমাত্র উপায় হলো সচেতনতা বৃদ্ধি ও ‘পজিটিভ কেস’দের উপযুক্ত ‘আইসোলেশন’ মেনে চলা। তাই, দেশের এই সংকটময় পরিস্থিতিতে যে জিনিসটি সবচাইতে বেশি গুরুত্বপূর্ণ তা হলো করোনা স্যাম্পল পরীক্ষা করা।

আজ দেহ আপনাদের সামনে নিয়ে এসেছে করোনা স্যাম্পল পরীক্ষা সংক্রান্ত কিছু অতীব জরুরি তথ্য। স্যাম্পল টেস্টিং দেশের কোথায় হয় এ বিষয়ে আপনি অবগত হবেন এবং প্রয়োজন হলে এই তথ্যগুলোকে কাজে লাগাবেন, এটাই আমরা আশা করছি।

প্রথমেই আমরা যেসব টপিকের উপর আলোকপাত করব তা হলো : এই স্যাম্পল বলতে আমরা কী বুঝি, স্যাম্পল গ্রহণের পদ্ধতি কেমন আর এই স্যাম্পল নেওয়ার পরের ধাপগুলো কী।

করোনা পরীক্ষা ২

স্যাম্পল বলতে আমরা বুঝি রোগীর কফ, লালা বা শ্লেষ্মা যেটা অবশ্যই একজন অভিজ্ঞ স্বাস্থ্যকর্মী সংগ্রহ করবেন। আন্তর্জাতিক নিউজ চ্যানেল সিএনএনের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, নমুনা সংগ্রহের পর তা সংরক্ষণ করা হবে স্টেরাইল টেস্টটিউব অথবা ভায়ালে। এরপর সেই নমুনা ঠান্ডা করে ফ্রিজারে ভরে ল্যাবরেটরিতে পাঠানো হয় পরীক্ষার জন্য। এসব ল্যাবে করোনা পরীক্ষার সকল সরঞ্জাম থাকা আবশ্যক। করোনা পরীক্ষার টেস্ট কিটও এসব ল্যাবে থাকা প্রয়োজন। ল্যাবটির জৈব নিরাপত্তা, অর্থাৎ এর বিএসএল লেভেল হতে হবে কমপক্ষে দুই।

করোনা পরীক্ষা ৩

ল্যাবরেটরিতে যে পদ্ধতিতে করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হয় তাকে বলে ‘আরটি-পিসিআর’ বা রিভার্স ট্রান্সক্রিপ্টেজ পলিমেরেজ চেইন রিয়্যাকশন। প্রথমেই নভেল করোনা ভাইরাসের আরএনএ আলাদা করা হয়, এরপর সেই আর এন এ-এর সাথে মেশানো হয় একটি রিয়েজেন্ট ও সত্যিকার করোনাভাইরাস থেকে সংগৃহীত জিনের উপাদান। সেই মিশ্রণটিকে একটি বিশেষ যন্ত্রে দিয়ে পরীক্ষা করা হয়। এভাবে বেশ কয়েকটি ধাপে এ পরীক্ষা সম্পন্ন হয়।

আগে এই পরীক্ষা করতে সময় লাগতো ৩—৪ দিনের মত, তবে বর্তমানে টেস্ট কিটের সাহায্যে এই পরীক্ষা করতে সময় লাগে কেবল ২—৩ ঘণ্টা। আরটি-পিসিআর ছাড়াও রোগীর রক্তের পরীক্ষা করিয়ে নিতে হবে, অন্য রোগ থেকে পৃথক করার জন্য।

বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত ৪১টিরও বেশি প্রতিষ্ঠানে কোভিড-১৯ পরীক্ষা করা হচ্ছে। দেশে রোগটির সংক্রমণের মাত্রা বুঝে উঠতে এই টেস্টিং খুবই জরুরি। ল্যাবগুলোতে নিজ নিজ এলাকা থেকে সরাসরি যোগাযোগ করে করোনা শনাক্ত করার জন্য নমুনা দিয়ে আসা যাবে।

রাজধানীর যে সকল ল্যাবে করোনার স্যাম্পল পরীক্ষা করা হচ্ছে –

https://www.facebook.com/icddrb/photos/a.193336870697332/3151702588194064/?type=3&theater

১। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল ইউনিভার্সিটি। মোবাইল নং ০১৮৬৬৬৩৭৪৮১

বিএসএমএমইউ ফিভার ক্লিনিক। ফোন নং ০১৪০৭৪২৮৪৪৩

২। ইন্সটিটিউট ফর ডেভেলপিং সায়েন্স অ্যান্ড হেলথ ইনিশিয়েটিভ অ্যান্ড হেলথ সার্ভিসেস (আইইডিএসএইচআই)। মোবাইল নং ০১৭৯৩১৬৩৩০৪

৩। ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার ফর ডায়েরিয়াল ডিজিজ রিসার্চ বাংলাদেশ (আইসিডিডিআরবি)। ফোন নং ০৯৬৬৬৭৭১১০০

৪। ইন্সটিটিউট অফ পাবলিক হেলথ নিউট্রিশিয়ান, মহাখালী। ফোন নং ০২-৮৮২১৩৬১

৫। চাইল্ড হেলথ রিসার্চ ফাউন্ডেশন, ঢাকা। ফোন নং ০২-৪৮১১০১১৭

৬। আর্মড ফোর্সেস ইন্সটিটিউট অব প্যাথলজি। মোবাইল নং ০১৭৬৯০১৫৫১৬

৭। ঢাকা ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অফ ল্যাবরেটরি মেডিসিন অ্যান্ড রেফারেন্স সেন্টার। ফোন নং ০২-৯১৩৯১৭

৮। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল। ফোন নং ০২-৫৫১৬৫০৮৮

৯। ইন্সটিটিউট অফ এপিডেমিয়োলজি, ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড রিসার্চ ( আইইডিসিআর)। ফোন নং ০২-৯৮৯৮৭৯৬

১০। মুগদা মেডিক্যাল কলেজ। ফোন নং ০১৫৫৩৩০৬৫১৮

১১। স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ। ফোন নং ০২৫৭৩১৫০৭৬

১২। কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল। ফোন নং +৮৮০২৫৫০৬২৩৫০

১৩। চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিমেল সায়েন্সেস ইউনিভার্সিটি। ফোন নং ০৩১৬৫৯৪৯২

১৪। যশোর ইউনিভার্সিটি অফ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলোজি। ফোন নং ০৪২১৬১৩৩৩

১৫। গাজি কোভিড ১৯ পিসিআর ল্যাব, রূপগঞ্জ । ফোন নং ৯৫১৩৮১৪, ৭১৭২০১৭, ৭১৭২০১২

ঢাকার বাইরেও এখন করানোর স্যাম্পল টেস্টের সুবিধা পাওয়া যাচ্ছে। এই ব্যবস্থা-সম্পন্ন কয়েকটি প্রতিষ্ঠান হলো –

https://www.facebook.com/bitid.ctg/photos/a.1740956342791758/1741594126061313/?type=1&theater

১। বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অফ ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশুয়াজ ডিজিজ, চট্টগ্রাম। ফোন নং ০৩১-২৭৮০৪২৬

২। রংপুর মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল। মোবাইল নং ০১৫২১৬৩৩৮৮

৩। রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল। মোবাইল নং ০১৭২১৭৭২১৫০

৪। ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ। ফোন নং ০৯১-৬৬০৬৩

৫। সিলেট এম.এ.জি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ। ফোন নং ০৮২১৭১৩৬৬৭

৬। খুলনা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল। ফোন নং ০৪১৭৬০৩৫০

৭। বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ। ফোন নং ০৪৩১২১৭৩৫৪৭

৮। কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল। ফোন নং ০১৮২১৪৩১১৪৪

৯। চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল। ফোন নং ০১৭১১৭৫০২৮১

১০। কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ। ফোন নং ০১৮১৬৫৫৬২

১১। আব্দুল মালেক উকিল মেডিক্যাল কলেজ। ফোন নং ০৩২১৫৪৩০০

১২। নোয়াখালি ইউনিভার্সিটি অফ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলোজি। ফোন নং ০৩২১৬১৪৩৩

১৩। শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজ,জামালপুর। ইমেইল— [email protected]

১৪। শহিদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ। ফোন নং ০৫১৬৯৯৬৫

১৫। এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ। ফোন নং ০৫৩১৬৪৭৮৭

১৬। কুষ্টিয়া মেডিক্যাল কলেজ। ফোন নং ০১৭৫৫২০১৯৫০

১৭। ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ। ফোন নং ০০৮৮০৬৩১৬১৭৪৪

১৮। নারায়ণগঞ্জ ৩০০ শয্যা হাসপাতাল। ফোন নং ০১৭৩০৩২৪৭৮৫ ১৯। সেন্ট্রাল পুলিশ হাসপাতাল। ফোন নং ০১৭৯৬৫০০১১৭

এছাড়াও কিছু প্রাইভেট হাসপাতালেও এখন টেস্টিং এর সুবিধা রয়েছে যেমন

১। স্কয়ার হাসপাতাল। ফোন নং ০৯৬১০০১০৬১৬

২। ইউনাইটেড হাসপাতাল। ফোন নং ০৯৬৬৬৭১০৬৬৬

৩। এভার কেয়ার হাসপাতাল। ফোন নং ০৯৬৬৬৭১০৬৭৮

৪। প্রভা হেলথ বাংলাদেশ লিমিটেড। ফোন নং ০৯৬৬৬৭১০৬৪৮

৫। ইবনে সিনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল। ফোন নং ০২৯০০৫৫৯৫

৬। আনোয়ার খান মডার্ন মেডিক্যাল কলেজ। ফোন নং ০২৯৬৭০২৯৫

৭। এনাম মেডিক্যাল কলেজ। ফোন নং +৮৮০২৭৭৪৩৭৭৯

৮। বায়োমেড ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড রিসার্চ ল্যাব। ফোন নং ০১৬২৪৮১২১৭৮

৯। ডিএমএফআর মলেকুলার ল্যাব অ্যান্ড ডায়াগনস্টিকস, সোবহানবাগ। ফোন নং ০৯৬০৬২১৩২৩৩

১০। ল্যাবএইড হাসপাতাল। ফোন নং ০৯৬৬৬৭১০৬০৬

১১। বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অফ হেলথ সায়েন্সেস জেনেরাল হাসপাতাল। ফোন নং ০১৭৮৩৯১৭১৫১

১২। কেয়ার মেডিক্যাল কলেজ। ফোন নং ০২৯১৩৪৪০৭

ঢাকার বাইরে হচ্ছে—

১। টিএমএসএস মেডিক্যল কলেজ অ্যান্ড রাফাতুল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতাল। ফোন নং ০১৭৩০০৪১৬৫১

২। শেভরন ক্লিনিক্যাল ল্যাব, চট্টগ্রাম। ফোন নং ০১৭৫৬২০৩৭২০

৩। ইম্পেরিয়াল হাস্পাতাল

বর্তমানে ব্র্যাকের স্যাম্পল কালেকশন বুথ খোলা হয়েছে ঢাকার ৩৪টি জায়গায়। এই বুথগুলো সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত স্যাম্পল সংগ্রহ করে। রাজধানী ছাড়াও এখন চট্টগ্রামেও এরকম বুথ চালু করা হয়েছে।০১৯৪৪৩৩৩২২২ ও ১০৬৫৫ এই দুটি নাম্বারে কল করলে আপনাকে সরাসরি করোনা হেল্পলাইনের সাথে সংযুক্ত করে দেওয়া হবে, যাতে করে আপনি স্যাম্পল কীভাবে জমা দিবেন এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

এই তথ্যগুলো আপনার এবং আপনার কাছের মানুষদের জেনে রাখা এখন সময়ের দাবি। এই বিষয়ে আরও কিছু জানতে চাইলে আমাদের ফেসবুক পেজের ইনবক্সে মেসেজ করতে পারেন।

প্রবাচ

Leave your vote

Comments

0 comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *