কর্মক্ষেত্রে অন্তঃসত্ত্বা নারী

সুস্থ গর্ভবতী মায়ের কাজ করতে নিষেধ নেই। ভারী কাজ বা কঠোর শারীরিক পরিশ্রম ছাড়া স্বাভাবিক যেকোনো কাজই তিনি করতে পারেন। তবে কর্মক্ষেত্রে অন্তঃসত্ত্বা নারীদের কিছু অসুবিধার মুখে তো পড়তেই হয়। তাই এ বিষয়ে কিছু সতর্কতার প্রয়োজন।

* একটানা বেশিক্ষণ একই ভঙ্গিতে বসে বা দাঁড়িয়ে থাকবেন না। বসে কাজ করতে হলেও মাঝে মাঝে উঠে একটু হাঁটাহাঁটি করা ভালো। বসে থাকার কারণে অনেকেরই পায়ে পানি আসে, সে ক্ষেত্রে বসার সময় পা রাখার টুল বা টেবিল ব্যবহার করা ভালো।

* কাজের সময় বুঝে বিশ্রামের একটা নিয়ম করে নিন। গর্ভাবস্থায় রাতে আট ঘণ্টা এবং দুপুরের দিকে দু-তিন ঘণ্টা বিশ্রাম প্রয়োজন।

* অনেকেরই সকালে উঠে বমিভাব বা বমি হয়। তাড়াহুড়ায় অফিস যাওয়ার সময় বিপত্তি হতে পারে। এসব ক্ষেত্রে সকালে উঠে অল্প একটু শুকনো খাবার খেয়ে বাসা থেকে বেরোনো উচিত। স্বাস্থ্যকর নাশতা খাবেন। ভাজাভুজিতে সমস্যা বাড়বে। একবারে খেয়ে খারাপ লাগলে বারবার অল্প করে খেতে পারেন।

* নিয়মিত বিরতিতে খাবার খেতে হবে। দুবার খাওয়ার মাঝে তিন ঘণ্টার বেশি বিরতি দেওয়া যাবে না। পেট খালি থাকলে বমি হওয়ার প্রবণতা বেশি হয়।

* বাড়ি থেকে খাবার সঙ্গে নেওয়া ভালো। মুড়ি, চিড়া, বিস্কুট বা এ ধরনের শুকনো খাবার রাখতে পারেন। বাইরের ভাজাপোড়া ও তেল-মসলাসমৃদ্ধ খাবার খাওয়া উচিত নয়। পর্যাপ্ত প্রোটিন এবং আয়রন ও ক্যালসিয়ামসমৃদ্ধ খাবার রাখুন।

* পর্যাপ্ত পানি পান করুন। অফিসে বিশুদ্ধ পানির ব্যবস্থা না থাকলে বাসা থেকেই নিয়ে আসুন।

* ঢিলেঢালা পোশাক পরে অফিসে কাজ করাটা আরামদায়ক।

* উঁচু জুতা বা হাই হিল পরা ঠিক নয়।

* খুব বেশি দূরের যাত্রা না করাই ভালো। যেসব যানবাহনে অতিরিক্ত ঝাঁকি লাগে, সেগুলো এড়িয়ে চলুন। আর যেকোনো বাহনেই সাবধানে বসতে হবে, যেন পড়ে যাওয়ার ঝুঁকি না থাকে। এবড়োখেবড়ো রাস্তা এড়িয়ে চলুন।

* অফিসের পরিবেশ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকা প্রয়োজন। খোলামেলা, পর্যাপ্ত বাতাসসমৃদ্ধ পরিবেশই গর্ভবতী মায়ের জন্য ভালো। নিজের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার দিকেও খেয়াল রাখুন। কাজের মাঝেও কখনো কখনো বমি হতে পারে, এ নিয়ে সংকোচ করবেন না। এটা স্বাভাবিক ব্যাপার।

* অতিরিক্ত কাজের চাপ নেবেন না। হাসিখুশি থাকুন। মানসিক চাপ এড়াতে হালকা কিছু ব্যায়াম করতে পারেন।

Leave your vote

Comments

0 comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *