কাজ ও সুস্থতা: ৬ পরামর্শ

কাজের ব্যস্ততার মধ্যেও শরীরের কিছু হালকা ব্যায়াম প্রয়োজন। তেমনি কাজের পদ্ধতি ঠিক হওয়াটাও জরুরি। কম্পিউটার ব্যবহার এবং বসে কাজ করার সময় যেসব বিষয় খেয়াল রাখা দরকার:

১. সব সময় পিঠ ও ঘাড় সোজা রেখে বসুন। ঘাড় বা কোমর বাঁকিয়ে বসলে পরবর্তী সময়ে ব্যথা হতে পারে।

২. নরম গদির চেয়ার পরিহার করুন। রিভলভিং চেয়ারও স্বাস্থ্যসম্মত নয়। এমন চেয়ার ব্যবহার করুন, যাতে বসলে পুরো মেরুদণ্ড স্বাভাবিক, সোজা ও স্থির থাকে। আরামদায়ক উচ্চতার চেয়ার-টেবিল ব্যবহার করুন।

৩. কম্পিউটার মনিটর থাকবে চোখের উচ্চতায়। শরীর থেকে মনিটরের দূরত্ব হবে কমপক্ষে এক হাত। অনেকে অফিসের ডেস্কের যেকোনো এক প্রান্তে কম্পিউটারের মনিটর রাখেন (ডান বা বামদিকে), ফলে বারবার মনিটরের দিকে ঘাড় ঘুরিয়ে কাজ করতে হয়। এটি একেবারেই উচিত নয়। কিছুদিন এভাবে কাজ করলে ঘাড়ের ব্যথায় ভুগতে হবে। তাই কম্পিউটারের মনিটর রাখুন ঠিক সামনের দিকে।

৪. ফাইল বা কোনো কাগজ পড়তে হলে বা কিছু লিখতে হলে খেয়াল রাখুন যেন ঘাড় বাঁকিয়ে কাজটি করতে না হয়। টেবিল নিচু হলে ঘাড় ঝুঁকিয়ে লিখতে হতে পারে। এ ক্ষেত্রে টেবিল পরিবর্তন করা সম্ভব না হলেও টেবিলের ওপর অধিক পুরুত্বের বইপত্র রেখে কাজের জায়গাটুকু উঁচু করে নিন। এভাবে কাজ করলে ঘাড় বাঁকাতে হবে না।

৫. কম্পিউটারের মাউস বা কি-বোর্ড ব্যবহারের সময় হাতের কবজি ভাঁজ করে রাখা ঠিক নয়। কবজি ভাঁজ না করে সোজাভাবে হাত রেখে কাজ করার অভ্যাস গড়ে তুলুন। কি-বোর্ড ও মাউস রাখুন আরামদায়ক দূরত্বে। কাজ করার সময় শরীর থেকে কনুই যেন খুব দূরে সরে না যায়।

৬. কাজের সময় পা সোজাভাবে মাটিতে রাখুন, চাইলে পা-দানিতে রাখতে পারেন।

Leave your vote

Comments

0 comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *