র’ক্তের চর্বি কমানোর ৬টি উপায়

বয়স ৩০ বছরের বেশি হলে প্রতি পাঁচ বছর অন্তর একবার র’ক্তের চর্বির মাত্রা পরীক্ষা করা উচিত। চর্বির মাত্রা বেশি হলে তা হৃদরোগ ও পক্ষাঘাতের ঝুঁকি বাড়ায়। জীবনাচরণ পরিবর্তন করে ও প্রয়োজনে ওষুধ সেবন করে র’ক্তে চর্বির মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়। এবার জেনে নিন কীভাবে র’ক্তে চর্বির মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখবেন।

১. হাঁটুন এবং হাঁটুন: কায়িক শ্রম ও ব্যায়াম ক্ষতিকর কোলেস্টেরল বা চর্বির মাত্রা কমায়, আর উপকারী চর্বি এইচডিএলের মাত্রা বাড়ায়। নৈশভোজের পর কমপক্ষে ৪৫ মিনিট হাঁটুন। যাঁরা অফিসে সারা দিন বসে কাজ করেন, তাঁরা প্রতি ঘণ্টায় একবার পাঁচ মিনিট হাঁটা বা চলাফেরা করুন।

২. লাল মাংস ও চর্বি বাদ: সম্পৃক্ত চর্বিযুক্ত খাবার, যেমন: ঘি, মাখনের তৈরি খাবার, গরু ও খাসির লাল মাংস বাদ দিন। আমিষের উৎস হিসেবে মাছ বেছে নিন।

৩. আঁশযুক্ত খাবার চাই: প্রতিদিন অন্তত ২০ থেকে ৩৫ গ্রাম আঁশ খাওয়া উচিত। এই আঁশ পাবেন তাজা খোসাসহ ফলমূল, সবজি, গোটা শস্যের তৈরি খাবারে। এই আঁশ র’ক্তের চর্বি কমাবে।

৪. বেশি বেশি মাছ: মাছ ও মাছের তেল কোলেস্টেরল কমায়। এতে থাকে ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড। সপ্তাহে অন্তত ২ থেকে ৩ বার মাছ খাওয়া উচিত।

৫. ধূমপানকে না: ধূমপান চিরতরে ছেড়ে দিন। নিকোটিন র’ক্তনালির আরও ক্ষতি করে ও উপকারী চর্বি কমায়।

৬. শর্করা রাখুন নিয়ন্ত্রণে: অনিয়ন্ত্রিত শর্করা র’ক্তে ও যকৃতে চর্বি হিসেবে জমা হতে থাকে। তাই ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখুন।

Leave your vote

Comments

0 comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *